Coronavirus Second Wave: ভ্যাকসিন পৌঁছতে এ বার ড্রোন ব্যবহারের অনুমতি

Apr 30, 2021 11:51 PM IST | Updated on: Apr 30, 2021 11:51 PM IST

#নয়াদিল্লি:  শর্তসাপেক্ষে তেলেঙ্গানা সরকারকে ড্রোন ব্যবহারের অনুমতি দিল কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক এবং ডিজিসিএ। পরীক্ষামূলক ভাবে ভ্যাকসিন পৌঁছনোর কাজে ব্যবহারের জন্যই এই ড্রোন ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ড্রোনের মাধ্যমে ভ্যাকসিন সরবরাহ করলে তা দ্রুততার সঙ্গে এবং সঠিক সময়ে নির্দিষ্ট জায়গায় সংক্রমণ এড়িয়ে ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া যাবে, এমন ভাবনা থেকেই ড্রোন ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলে মন্ত্রক সূত্রে খবর। তবে এই অনুমোদন দেওয়া হয়েছে এক বছরের জন্য। তার পরে ওই অনুমোদনের আবার পুনর্নবীকরণ করাতে হবে।

তবে যে কোনও জায়গাতেই ড্রোনের মাধ্যমে ভ্যাকসিন পাঠানো যাবে না। যেখানে প্রয়োজন, সেখানেই ড্রোনের মাধ্যমে ভ্যাকসিন পাঠানো যাবে। এর আগে এ মাসের শুরুতে আইসিএমআর-কে কানপুর আইআইটি-র সঙ্গে যৌথ ভাবে ভ্যাকসিন সরবরাহের অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক।

Coronavirus Second Wave: ভ্যাকসিন পৌঁছতে এ বার ড্রোন ব্যবহারের অনুমতি

Photo-File

ডিজিসিএ-র এক কর্তা বলেন, "ভ্যাকসিন পৌঁছনোর কাজে দ্রুততা আনতেই এই অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এতে ঘিঞ্জি এবং কোভিড-প্রবণ এলাকায় ন্যূনতম মানব-ছোঁয়াচ এড়িয়ে ভ্যাকসিন পাঠানো যাবে। অন্য দিকে, দুর্গম এলাকাতেও খুব সহজে ড্রোনের মাধ্যমে নির্দিষ্ট স্থানে ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া যাবে।"

এর আগে অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক বিসিসিআই-সহ বিভিন্ন সংস্থাকে শর্তসাপেক্ষে ড্রোন ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে।তবে প্রতিটি ক্ষেত্রেই অনুমোদন দেওয়া হয়েছে এক বছরের জন্য। এক বছর ওই অনুমোদন রিনিউ করবে মন্ত্রক বা ডিজিসিএ। ড্রোনের মাধ্যমে ভ্যাকসিন সরবরাহ করলে তা দ্রুততার সঙ্গে এবং সঠিক সময়ে নির্দিষ্ট জায়গায় সংক্রমণ এড়িয়ে ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া যাবে, এমন ভাবনা থেকেই ড্রোন ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলে মন্ত্রক সূত্রে খবর। তবে এই অনুমোদন দেওয়া হয়েছে এক বছরের জন্য। তার পরে ওই অনুমোদনের আবার পুনর্নবীকরণ করাতে হবে। এর আগে এ মাসের শুরুতে আইসিএমআর-কে কানপুর আইআইটি-র সঙ্গে যৌথ ভাবে ভ্যাকসিন সরবরাহের অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক।

SHALINI DATTA